মাসুদ আজহার ইস্যুতে ভারত নয়, পাকিস্তানের পাশেই সৌদি আরব! - DeskO [Desk Opinion]

Breaking

Tuesday, February 19, 2019

মাসুদ আজহার ইস্যুতে ভারত নয়, পাকিস্তানের পাশেই সৌদি আরব!

মাসুদ আজহারকে রাষ্ট্রসংঘের ‘বিশ্ব সন্ত্রাসী’-র তালিকায় অন্তর্ভুক্তি নিয়ে ভারত ‘রাজনীতি’ করছে বলে এবার তোপ দাগল সৌদি আরব। পাকিস্তানের সঙ্গে হাত মিলিয়ে যৌথ বিবৃতি দিয়ে সৌদি আরব জানিয়েছে, রাষ্ট্রসংঘের তালিকায় অন্তর্ভুক্তি নিয়ে রাজনীতি না করাই ভাল। জইশ-এ-মহম্মদ প্রধান মাসুদ আজহারকে ‘বিশ্ব সন্ত্রাসী’ হিসেবে ঘোষণা করতে মরিয়া ভারত। রাষ্ট্রসংঘের ‘বিশ্ব সন্ত্রাসী’-র তালিকায় মাসুদের নাম অন্তর্ভুক্তি নিয়ে ভারত যে চেষ্টা চালাচ্ছে, সে নিয়েই এদিন সৌদি সরকার এমন মন্তব্য করল বলে মনে করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গি হামলায় নিহত হয়েছেন কমপক্ষে ৪০ জন জওয়ান। যে ঘটনার দায় স্বীকার করেছে জইশ-এ-মহম্মদ। মাসুদকে বিশ্ব সন্ত্রাসী হিসেবে ঘোষণা করা নিয়ে ভারত উঠেপড়ে লেগেছে। ভারতের এহেন পদক্ষেপে পাশে নেই আরেক প্রতিবেশী রাষ্ট্র চিনও। জি-২০ দেশগুলির সঙ্গে এ নিয়ে বারংবার আলোচনাও চালাচ্ছেন ভারতীয় বিদেশ সচিব।

পাকিস্তান ও সৌদি আরবের যৌথ বিবৃতির আগে বিদেশ সচবি(ইকোনমিক রিলেশনস) টি এস তিরুমূর্তি জানিয়েছিলেন, ‘‘১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় যে হামলা হয়েছে তার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে সৌদি আরব। সন্ত্রাস মোকাবিলা ও নিরাপত্তায় সৌদি যেভাবে পাশে থেকেছে তা প্রশংসনীয়। ২০১৬ সালে সৌদি আরবে প্রধানমন্ত্রীর সফরের সময় সন্ত্রাস দমন সংক্রান্ত একটি মউ স্বাক্ষর করা হয়েছিল। সন্ত্রাস দমনে ভারতের সঙ্গেই কাজ করতে চায় ওরা।’’

কিন্তু তিরুমূর্তির এহেন মন্তব্যের কোনও প্রতিফলনই ঘটল না পাকিস্তান-সৌদি আরবের যৌথ বিবৃতিতে। সন্ত্রাস দমন নিয়ে পাক সরকারের সাফল্যের গুণগান করতে শোনা গিয়েছে সৌদি আরবকে। যৌথ বিবৃতিতে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রশংসা করেছেন সৌদি আরবের রাজা। ভারতের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক আলোচনা যেভাবে চালিয়ে যাচ্ছেন ইমরান খান, তারও প্রশংসা করেছে সৌদি আরব। একইসঙ্গে কর্তারপুর নিয়েও ইমরানকে সাধুবাদ জানিয়েছে সৌদি আরব।

Pages