পাকিস্তানকে দেওয়া ‘মোস্ট ফেভারড নেশন’-এর তকমা প্রত্যাহার ভারতের! - DeskO [Desk Opinion]

Breaking

Friday, February 15, 2019

পাকিস্তানকে দেওয়া ‘মোস্ট ফেভারড নেশন’-এর তকমা প্রত্যাহার ভারতের!

কাশ্মীরে জঙ্গি হামলার ঘটনায় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করল কেন্দ্রীয় সরকার। পাকিস্তানকে দেওয়া ‘মোস্ট ফেভারড নেশন’-এর তকমা প্রত্যাহার করছে ভারত সরকার। শুক্রবার এমনটাই জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। কাশ্মীরে হামলা নিয়ে এদিন সকালে রাজধানীতে জরুরি বৈঠকে বসে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এই কড়া পদক্ষেপ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে এদিন জেটলি বলেন, ‘‘পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কূটনৈতিক পদক্ষেপ করবে সরকার। কূটনৈতিক স্তরে আলোচনা চালাবে বিদেশমন্ত্রক।’’ কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, ‘‘যারা হামলা চালিয়েছে এবং যারা এই হামলায় মদত দিয়েছে, তাদেরকে বিরাট মূল্য চোকাতে হবে।’’ জেটলির সুরেই একই কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। কাশ্মীরের হামলার ঘটনায় পাকিস্তানকে নিশানা করে মোদী বলেন, ‘‘বিরাট বড় ভুল করল ওরা। এজন্য ওদের বিরাট মূল্য চোকাতে হবে। ষড়যন্ত্র করে প্রতিবেশী রাষ্ট্র কিছুতেই ছাড় পাবে না। প্রতিবেশী রাষ্ট্র যদি মনে করে, এভাবে আমাদের অস্থির করবে, তাহলে ভুল করবে। দোষীদের কিছুতেই রেয়াত করা হবে না। সকলে মিলে একজোট হয়ে মোকাবিলা করব।’’

কাশ্মীরে হামলা প্রসঙ্গে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী বলেন, ‘‘সন্ত্রাসের মাধ্যমে বিভাজনের চেষ্টা চলছে। আমরা সকলে একসঙ্গে রয়েছি। নিহত জওয়ানদের পরিবারের পাশে আছি। আমরা সরকারের পাশে আছি।’’ সন্ত্রাসের সঙ্গে কোনওরকম আপস করা হবে না বলে জানিয়েছেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গি হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন কমপক্ষে ৪০ জন জওয়ান, জখম হয়েছেন আরও অনেকে। এ ঘটনার দায় স্বীকার করেছে জইশ-ই-মহম্মদ। জঙ্গি হামলায় দেশের জওয়ানদের মৃত্যুর ঘটনায় ক্ষোভে ফুঁসছে গোটা দেশ। বদলা নেওয়ার দাবি উঠেছে সব মহলে। আজ জম্মু-কাশ্মীর যাচ্ছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। ‘‘কড়া জবাব দেওয়া হবে’’ বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন রাজনাথ।

Pages